১৩ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
কাঁঠালিয়ায় ভাঙা সেতুর মাঝে সাঁকো
প্রকাশিত : ডিসেম্বর ১০, ২০২০ ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ
আপডেট : October 05, 2020 8:47 pm

ডেস্ক রিপোর্ট: ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় দীর্ঘদিন আগে ভেঙে যাওয়া একটি সেতু পুনর্নির্মাণ না করায় পাঁচ গ্রামের মানুষকে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বিকল্প কোনো পথ না থাকায় ভাঙা সেতুর ওপর বাঁশের সাঁকো দিয়ে শিক্ষার্থীসহ শত শত মানুষ প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, দুই বছর আগে উপজেলার ছোনাউটা চাঁন্দের খালের ওপর নির্মিত আয়রন সেতুটির মাঝের অংশ বালুবাহী একটি ট্রলারের ধাক্কায় ভেঙে

পানিতে পড়ে যায়। সেতুটি ভেঙে যাওয়ার কারণে আমুয়া ইউনিয়নের পাঁচ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ দুর্ভোগে পড়ে।

দীর্ঘদিনেও সেতু মেরামতে কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় বাধ্য হয়েই এলাকাবাসী সেতুটির ভাঙা অংশে বাঁশের সাঁকো তৈরি করে কোনোমতে পারাপার হচ্ছে।

ছোনাউটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক সুশান্ত দেবনাথ বলেন, সেতুটি মেরামত না হওয়ায় এলাকার শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয় আসা-যাওয়া করতে সমস্যা হচ্ছে। প্রতিদিন এ সেতু দিয়ে ছোনাউটা ফাজিল মাদ্রাসা, ঘোষেরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঘোষেরহাট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, ছোনাউটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘোষেরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ ছোনাউটা মাদ্রাসা হাটসহ পাঁচ-সাতটি গ্রামের হাজার হাজার মানুষ চলাচল করছে।

ছোনাউটা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মজিদ অভিযোগ করে বলেন, খালের ওপর গুরুত্বপূর্ণ এ সেতুটি ভেঙে দুই বছর ধরে ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা সদরের সঙ্গে যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

আমুয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম আমিরুল ইসলাম ফোরকান জানান, ভেঙে যাওয়া সেতুটি দ্রুত পুনর্নির্মাণ একান্ত প্রয়োজন।

এলজিইডি উপজেলা প্রকৌশলী সাদ জগলুল ফারুক বলেন, ভেঙে যাওয়া সেতুর টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন। টেন্ডারের পর দ্রুত কাজ শুরু হবে।